, সোমবার, ৪ জুলাই ২০২২

প্রকাশ :  ২০২২-০৬-০১ ০৭:১৩:৫৭

কে হবে ফাইনালিসিমার চ্যাম্পিয়ন…?

একদল জিতেছে ইউরো চ্যাম্পিয়নশিপ শিরোপা, অন্যদল জিতেছে কোপা আমেরিকা। ফুটবল বিশ্বে রাজত্ব করা দুই মহাদেশ ইউরোপ এবং লাতিন আমেরিকার সেরা দুই দল আর্জেন্টিনা এবং ইতালিকে নিয়ে এবারের আয়োজন, ফাইনালিসিমা। অর্থ্যাৎ চ্যাম্পিয়নদের চ্যাম্পিয়ন নির্ধারণ করা।

দুই মহাদেশের দুই চ্যাম্পিয়ন- আর্জেন্টিনা এবং ইতালির মধ্যে সেরা কে, তা নির্ধারণ হবে আজ রাতে, লন্ডনের ওয়েম্বলি স্টেডিয়ামে। বাংলাদেশ সময় আজ রাত পৌনে ১টায় টেন ওয়ান সরাসরি দেখাবে ম্যাচটি।

ঘরোয়া ফুটবলের মৌসুম আপাতত শেষ। নতুন মৌসুম শুরু হতে আরও এক-দেড় মাসের অপেক্ষা। কাতারে বিশ্বকাপ আয়োজন না হলে হয়তো এখন এই বৈশ্বিক আসরটি নিয়েই ব্যস্ত থাকতো সবাই।

তবে, নভেম্বর পর্যন্ত বিশ্বকাপের অপেক্ষা হলেও, এই সময়ে ফুটবল ভক্তদের হতাশ হওয়ার সুযোগ থাকছে না। যেহেতু দুই মহাদেশের দুই সেরার আয়োজন, সে কারণে বেশ কয়েকদিন ধরেই এই ম্যাচটি নিয়ে উত্তেজনার পারদ চড়াচ্ছে অনেক বেশি।

দুই দলের ফুটবলারদের দিকে তাকালেই ফুটবলীয় উত্তেজনাটা বেশ টের পাওয়া যায়। একইসঙ্গে দুই দলের র‌্যাংকিং। যদিও ইউরো চ্যাম্পিয়ন ইতালি এবারের কাতার বিশ্বকাপ খেলার যোগ্যতাই অর্জন করতে পারেনি। অন্যদিকে বেশ দাপটের সঙ্গেই কাতার বিশ্বকাপে জায়গা করে নিয়েছে আর্জেন্টিনা।

নিজেদের আগের আন্তর্জাতিক ম্যাচে তুরস্ককে ৩-২ গোলে হারিয়ে ইতালি অবশ্য নিজেদেরকে ট্র্যাকেই রেখেছে। রবার্তো মানচিনির অধীনে চেষ্টা করছে আবারও নিজেদের বিশ্বসেরা হিসেবে তুলে ধরার। বিশ্বকাপে খেলার যোগ্যতা অর্জন না করতে পারলেও কোচ মানচিনিকেই ধরে রেখেছে আজ্জুরিরা।

অন্যদিকে লিওনেল স্কালোনির অধীনে গত দু’তিনটা বছর বেশ ভালোই কাটাচ্ছেন আর্জেন্টাইনরা। টানা ৩০টিরও বেশি ম্যাচ অপরাজিত থাকার রেকর্ড তাদের। যদিও নিজেদের সর্বশেষ ম্যাচে ১-১ গোলে ড্র করেছে আলবিসেলেস্তারা। তবুও লিওনেল মেসিরা আজও ফেবারিট থাকবে ইতালির ওপর।

তবে হেড টু হেডে কিছুটা এগিয়ে রয়েছে ইতালি। মোট ১৬বার মুখোমুখি হয়েছে দু’দল। এর মধ্যে ৬বার জিতেছে ইতালি এবং ৫বার জিতেছে আর্জেন্টিনা। ৫টি ম্যাচ হয়েছে ড্র। এর মধ্যে আবার আর্জেন্টিনাকে ইতালি হারিয়েছে সর্বশেষ ১৯৮৭ সালে। এরপর চারবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নদের বিপক্ষে তিন ম্যাচেই জিতেছে আর্জেন্টিনা।

তবে ইতালির জন্য দুঃসংবাদ হলো, ডোমেরিকো বেরার্দি, সিরো ইমোবিলে, ফেডেরিকো চিয়েসা এবং গাইতানো ক্যাস্ট্রোভিলি রয়েছেন ইনজুরিতে। যে কারণে তাদেরকে বাদ দিয়েই দল গঠন করতে হয়েছে রবার্তো মানচিনিকে। জিওর্জিও চিয়েল্লিনিকে দলে রাখা হয়েছে এবং সম্ভবত, আর্জেন্টিনার বিপক্ষে এই ম্যাচটিই হতে পারে ইতালির জার্সিতে তার ক্যারিয়ারের শেষ ম্যাচ।

অন্যদিকে আর্জেন্টিনা দলে ইনজুরির শঙ্কা নেই। ক্রিশ্চিয়ান রোমেরোর হালকা চোট আছে। এছাড়া বাকি সবাই ফ্রেশ। স্কালোনির স্কোয়াডে মেসি, ডি মারিয়া এবং লওতারো মার্টিনেজরা শুরু থেকেই থাকবেন।

আরো সংবাদ