, মঙ্গলবার, ২০ অক্টোবর ২০২০

মঙ্গলবার

বিষয় :

প্রকাশ :  ২০১৮-০৩-০৭ ০৮:৩২:৫৭

গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে জ্বলে উঠলেন রস টেলর সঙ্গে সমতায় ফেরালেন কিউইদের

ক্রীড়া ডেস্ক, বঙ্গনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম.

সিরিজে টিকে থাকতে এ ম্যাচে জয়ের কোন বিকল্প ছিল না স্বাগতিক নিউজিল্যান্ডের। এমন গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে জ্বলে উঠলেন অভিজ্ঞ রস টেলর। ব্যাট হাতে খেললেন ১৮১ রানের দুর্দান্ত ইনিংস। তার এই দুর্দান্ত ইনিংসের উপর ভর করে সফরকারী ইংল্যান্ডকে ৫ উইকেটে হারিয়ে সমতায় ফিরেছে কিউইরা।

ডুনেডিনে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে ইংল্যান্ডকে ভালো শুরু এনে দুই ওপেনার রয় আর বেয়ারস্টো। ব্যক্তিগত ৪২ রানে রয় সাজঘরে ফিরলে রুটকে সঙ্গে নিয়ে ১৯০ রানের জুটি গড়েন বেয়ারস্টো। তুলে নেন ক্যারিয়ারের চতুর্থ সেঞ্চুরি। ব্যক্তিগত ১৩৮ রান করে সাজঘরে ফেরেন এই ওপেনার।

বেয়ারস্টোর বিদায়ের পর দ্রুত উইকেট হারাতে থাকে ইংল্যান্ড। কোন রান না করেই সাজঘরে ফিরে যান বাটলার। অধিনায়ক মরগানের ব্যাট থেকে আসে মাত্র ৫ রান। পুরো সিরিজে দুর্দান্ত খেলা স্টোকস করেন ১। ব্যাট হাতে ব্যর্থ হন মঈন আলী (৩) ও ক্রিস ওকসও (৩)।

তবে একপ্রান্ত ধরে খেলে ক্যারিয়ারের এগারতম সেঞ্চুরি তুলে নেন জো রুট। ১০২ রান করা রুটের বিদায়ের পর টিম কুরান ১০ বলে ২২ রান করলে ৩৩৫ রানে বিশাল সংগ্রহ পায় দলটি।

৩৩৬ রানের পাহাড়সম স্কোর তাড়া করতে নেমে কোন রান না করেই সাজঘরে ফিরে যান দুই ওপেনার গাপটিল ও মানরো। তৃতীয় উইকেটে উইলিয়ামসনকে সঙ্গে নিয়ে ৮৪ রানের জুটি গড়েন টেলর। সাজঘরে ফেরার আগে কিউই অধিনায়ক করেন ৪৫ রান।

চতুর্থ উইকেটে ল্যাথামকে নিয়ে ১৮৭ রান যোগ করে টেলর। তুলে নেন ক্যারিয়ারের উনিশতম সেঞ্চুরি। সেঞ্চুরির দিকে এগিয়ে যাচ্ছিলেন ল্যাথামও। তবে ব্যক্তিগত ৭১ রান করে সাজঘরে ফিরে যান এই তারকা।

পঞ্চম উইকেটে গ্র্যান্ডহোমের সঙ্গে ৩০ ও হেনরি নিকোলসের সঙ্গে ৩৬ রানের জুটি গড়ে দলকে দুর্দান্ত এক জয় এনে দেন টেলর। নিজে অপরাজিত থাকেন ক্যারিয়ার সেরা ১৮১ রানে। এ জয়ে সিরিজে ২-২ এ সমতায় ফিরল কিউইরা। ফলে শেষ ম্যাচটি অঘোষিত ফাইনালে রূপ নিল।

আরো সংবাদ