, শনিবার, ২৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০

শনিবার

বিষয় :

প্রকাশ :  ২০১৯-১০-০৩ ১৯:৩০:০১

বিএমএসএফ চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা শাখা ও স্থানীয়দের সাহায্যে হারিয়ে যাওয়া আইমনকে ফিরে পেল তার পরিবার

মো: নুরুল আলম, বিশেষ প্রতিনিধি:

হারিয়ে যাওয়ার ৭দিন পর মা-বাবার কাছে ফিরল আজমুল হাসান আইমন(১১) ।

গত ২৮ সেপ্টেম্বর (শনিবার) বাড়ি থেকে কক্সবাজার গৌরকঘাটা আল জামিয়া মাদ্রাসা যাওয়ার সময় হারিয়ে যায় আজমুল হাসান আইমন। তার ছবি ফেসবুকে দেখতে পেয়ে আজ বৃহস্পতিবার (৩অক্টোবর) তাকে ফিরে পেয়েছেন তার পরিবার।

কক্সবাজার জেলার মহেশখালী উপজেলার গৌরকঘাটা এলাকা শিকদার পাড়া থেকে গত ২৮ সেপ্টেম্বর (শনিবার) মুহাম্মদ শফিউল আলমের ছেলে আজমুল হাসান (আইমন) (১১) হারিয়ে যায়।

বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক ফোরাম( বিএমএসএফ) চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা শাখা ও স্থানীয়দের সাহায্যে বৃহস্পতিবার (৩ অক্টোবর) চট্টগ্রামে চন্দনাইশ উপজেলায় কাঞ্চানাবাদ ইউনিয়নের মুরাদাবাদ এলাকা থেকে তাকে ফিরে পেয়েছেন তার পরিবার।

হারিয়ে যাওয়া আজমুল হাসান আইমনের মামা মহেশখালী ছাত্রলীগ নেতা শওকত ইসলাম (২৫) বঙ্গনিউজটোয়েন্টিফোর কে বলেন, “আমার ভাগিনা মাদ্রাসার ছাত্র। সে বাড়ি থেকে বের হয় কক্সবাজার গৌরকঘাটা আল জামিয়া মাদ্রাসায় যাওয়ার জন্য গত ২৮ সেপ্টেম্বর বেলা ১১টার দিকে। কিন্তু পরে জানতে পারি সে মাদ্রাসায় যায়নি। এ জন্য এলাকায় তাকে খোঁজতে মাইকিং করি। পরদিন বিভিন্ন জায়গায় খোঁজখবরও দিয়ে রাখি, এরপরও পাওয়া যায়নি। পরবর্তীতে বিএমএসএফ চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক কাইছার ইকবাল চৌধুরী  ভাইকে বিষয়টি অবগত করে সাংবাদিকদের সাহায্যে ফেসবুকে ছবি দিই। ফেইসবুকে ছবি দেখে চন্দনাইশে এক স্থানীয় ব্যক্তি জানান, চন্দনাইশ উপজেলার মুরাদাবাদ গ্রামের স্থানীয় যুবলীগ নেতা সুমন রানার বাড়িতে আছে আইমন। গতকাল বুধবারে বিকালের দিকে যোগাযোগ করি। আজ বিকেলে আমার ভাগিনাকে আমি ফিরে পেয়েছি। যাঁরা আমার ভাগিনাকে আশ্রয় দিয়েছেন, তাঁদের প্রতি আমি কৃতজ্ঞ।”

চন্দনাইশে যুবলীগ নেতা সুমন রানা বঙ্গনিউজকে বলেন, গত সোমবার বেলা দেড়টার দিকে বাড়ির পাশে রাস্তায় অচেনা একটি ছেলেকে দেখেন তিনি। ছেলেটির পরিচয় জানতে চাইলে সে তার নাম আইমন বলে জানায়। বাড়ি কোথায় জানতে চাইলে সে মহেশখালী শিকদার পাড়া বলে। পরে ফেইসবুকে ছেলেটির ছবি দিয়ে একটি স্ট্যাটাস দিই এবং স্থানীয় সাংবাদিকদের সহযোগিতা নিই। ওই স্ট্যাটাস দেখে বুধবারে ছেলেটির মামার সঙ্গে যোগাযোগ করেন স্থানীয় সাংবাদিকগণ। পরে বৃহস্পতিবার (৩অক্টোবর) সন্ধ্যায় স্থানীয় গণ্যমান্য বক্তিবর্গ ও বিএমএসএফ চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা শাখার নেতৃবৃন্দের উপস্থিতিতে তাঁর পরিবারের কাছে ফিরে যায় আইমন।

এই কয়েক দিন আইমন স্হানীয় ইউপি সদস্য (সাবেক) আলী মেম্বার ও যুবলীগ নেতা সুমনের বাসায় ছিল। তারা বলেন, আইমনকে তার পরিবারের কাছে ফিরিয়ে দিতে পেরে অত্যন্ত আনন্দিত।

বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক ফোরাম, চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক ও দৈনিক ইনফো বাংলা পত্রিকার  চীফ রিপোর্টার কাইছার ইকবাল চৌধুরী জানান, আজ সন্ধ্যায় আইমনকে তার পরিবারের কাছে পৌঁছে দেওয়া হয়েছে। হারানো হীরার টুকরো আইমনকে ফিরে পেয়ে মা-বাবা ফেললো স্বস্তির নিশ্বাস।

হারিয়ে যাওয়া ছেলে আজমুল হাসান আইমনকে তার পরিবারের হাতে তোলে দেওয়ার সময় উপস্থিত ছিলেন বিএমএসএফ, চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক ও দৈনিক ইনফো বাংলা পত্রিকার চীফ রিপোর্টার কাইছার ইকবাল চৌধুরী, সহ-সাংগঠনিক এম.এ. হামিদ, অর্থ সম্পাদক ইঞ্জিনিয়ার রিদুওয়ানুল হক , দৈনিক ভোরের কাগজ লোহাগাড়া প্রতিনিধি ও বিএমএসএফ, চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা কমিটির সিনিয়র সদস্য সাইফুল ইসলাম, বিএমএসএফ চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা শাখার সদস্য ও দৈনিক দেশ রূপান্তর পত্রিকার চন্দনাইশ প্রতিনিধি মো. নুরুল আলম, স্থানীয় ইউপি সদস্য(সাবেক) আলী মেম্বার, গাছবাড়িয়া কলেজ ছাত্রলীগের সাবেক যুগ্ম সম্পাদক মো. আরিফ উদ্দিন,যুবলীগ নেতা সিকন্দার, যুবলীগ নেতা মো. সুমন রানা, যুবদল নেতা আনোয়ার হোসেন, আইমনের মামা শওকত ইসলাম প্রমুখ।

আরো সংবাদ