, বৃহস্পতিবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০

বৃহস্পতিবার

বিষয় :

প্রকাশ :  ২০১৮-০৪-০৭ ১১:২৪:৪৫

মুম্বাই ইন্ডিয়ানসের বিরুদ্ধে খেলতে মুখিয়ে চেন্নাই

নিউজ ডেস্ক, বঙ্গনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম.

ম্যাচ ফিক্সিংয়ের সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে দুই বছরের জন্য আইপিএলে নিষিদ্ধ ছিল টুর্নামেন্টটির অন্যতম সফলতম দল চেন্নাই সুপার কিংস। নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে চলতি মৌসুমে পুনরায় মাঠে দেখা যাবে হলুদ জার্সিধারী দলটিকে। তবে নিজেদের খেলার মাঠে নিষেধাজ্ঞার কোনো নেতিবাচক প্রভাব পড়বে না বলে জানিয়েছেন দলটির প্রধান কোচ স্টিফেন ফ্লেমিং।

টুর্নামেন্টের উদ্বোধনী দিনে মুম্বাই ইন্ডিয়ানসের মুখোমুখি হবে দু’বারের চ্যাম্পিয়ন চেন্নাই। যে দু’বছর নিষিদ্ধ ছিল চেন্নাই, তার দ্বিতীয় বছরে নিজেদের তৃতীয় শিরোপা জিতে নেয় মুম্বাই। একই সঙ্গে নিজেদের নামের পাশে নিয়ে নেয় আইপিএলের সর্বোচ্চ শিরোপা জেতার খেতাবও। গত মৌসুমের শিরোপা জয়ের সুখস্মৃতি নিয়ে, নিজেদের ঘরের মাঠেই চেন্নাইয়ের মুখোমুখি হতে যাচ্ছে মোস্তাফিজুর রহমানের বর্তমান দল মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স।

তবে এতসব আলোচনা মাথায় নিতে চাচ্ছেন না চেন্নাই কোচ ফ্লেমিং। নিউজিল্যান্ডের সাবেক এই অধিনায়ক ম্যাচের আগে সংবাদ সম্মেলনে জানান, টুর্নামেন্টের বর্তমান চ্যাম্পিয়নদের মুখোমুখি হওয়ার জন্য পুরোপুরি প্রস্তুত তার দল।

ফ্লেমিংয়ের ভাষ্যে, ‘প্রস্তুতি ঠিকঠাকভাবেই শেষ করেছি আমরা। প্রতি ম্যাচের আগেই স্নায়ুচাপ থাকে, এটাই স্বাভাবিক। ছেলেরা মাঠে নামার জন্য উদগ্রীব। টুর্নামেন্ট শুরুর আগে সপ্তাহ দুয়েক সময় পেয়েছি। এই সময়ের অনুশীলনের ভিত্তিতেই বলে দিতে পারি, আমার দল পুরোপুরি প্রস্তুত।’

চেন্নাই নিষিদ্ধ হওয়ার আগের আট আসরে দু’বার করে শিরোপা জিতেছিল মুম্বাই ইন্ডিয়ানস, কলকাতা নাইট রাইডার্স এবং চেন্নাই সুপার কিংস। তবে দশম আসরে নিজেদের তৃতীয় শিরোপা জিতে সবার উপরে উঠে যায় মুম্বাই। ফলে চেন্নাইয়ের শ্রেষ্ঠত্ব পুনরুদ্ধারের পথে মুম্বাইকেই ধরা হচ্ছে বড় বাধা হিসেবে। চেন্নাইয়ের বস ফ্লেমিংও মেনে নেন, দুই দলের মধ্যকার প্রতিদ্বন্দ্বীতা।

তিনি বলেন, ‘হ্যাঁ! এটা অস্বীকার করার উপায় নেই। আইপিএলের সবচেয়ে কঠিন দুই প্রতিদ্বন্দ্বিই লড়বে আজকের (শনিবার) ম্যাচে। এই টুর্নামেন্টের আকর্ষণ আরও বৃদ্ধি করতে এমন ম্যাচের জুড়ি নেই। এ ক্ষেত্রে মুম্বাইয়ের মাঠের দর্শকদেরও বড় একটি ভূমিকা থাকবে বলেই আমার বিশ্বাস। কেননা দর্শকরাই পারে যে কোন খেলার আকর্ষণ আরও বাড়িয়ে তুলতে।’

ইনজুরির কারণে আসরের প্রথম ম্যাচ থেকে খেলতে পারবেন না চেন্নাইয়ের মিডল অর্ডারের অন্যতম ভরসার প্রতীক দক্ষিণ আফ্রিকার অধিনায়ক ফ্যাফ ডু প্লেসি। এছাড়া আরও দু-একটি ইনজুরি সমস্যা রয়েছে চেন্নাই শিবিরে। ফলে প্রশ্ন উঠেই যায়, ইনজুরি আক্রান্ত খেলোয়াড়দের পেছনে এতো বেশি খরচ কেন করল তারা? এমন প্রশ্নের জবাবে ফ্লেমিং জানিয়ে দেন, ইনজুরিতে থাকা অভিজ্ঞ খেলোয়াড়রা শুরুতে কয়েকটা ম্যাচ খেলতে না পারলেও, তারাই মূলতঃ দলের মূল কান্ডারি।

ফ্লেমিং বলেন, ‘আমরা একঝাঁক তরুণ খেলোয়াড় নিয়ে বাজি ধরতে পারি না। তারা আমাদের ট্রফি পাইয়ে দেবে, এমন নিশ্চয়তা দিতে পারবে না কেউই। তাই অভিজ্ঞতাকেই প্রাধান্য দিয়েছি আমরা। শেন ওয়াটসন, ডোয়াইন ব্রাভো, হরভজন সিংদের মতো খেলোয়াড়দের আপনি খাটো করে দেখতে পারবেন না। তারাই আপনাকে ম্যাচ জেতাবে। হ্যাঁ রশিদ খান, ওয়াশিংটন সুন্দরদের মতো কিছু ব্যতিক্রম থাকেই, তবে অভিজ্ঞতার মূল্য সবসময়ই বেশি।’

দুই বছর পর আইপিএলে ফিরে, পুনরায় তারা ফিরিয়েছে দলটির নিয়মিত অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনিকেও। মুম্বাইয়ের ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামে মুম্বাই অধিনায়ক রোহিত শর্মার সাথে এবারের আসরের উদ্বোধনি ম্যাচে বাংলাদেশ সময় রাত আটটায় (৮.০০) টস করতে নামবেন ভারত এবং চেন্নাইয়ের সফল অধিনায়ক ধোনি।

আরো সংবাদ