, মঙ্গলবার, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০

মঙ্গলবার

বিষয় :

প্রকাশ :  ২০১৮-০৩-৩১ ০৬:৩৮:২৫

ওয়ার্নার ভবিষ্যতে খেলবেন না অস্ট্রেলিয়ার হয়ে !

নিউজ ডেস্ক, বঙ্গনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম.

বল টেম্পারিং নিয়ে স্মিথ-বেনক্রফটের পর সংবাদ সম্মেলনে কথা বললেন ডেভিড ওয়ার্নার। নিজের অপরাধ স্বীকার করে কাঁদলেন এই ওপেনার। তবে এরই ফাঁকে জানিয়ে দিলেন অস্ট্রেলিয়ার হয়ে ভবিষ্যতে আর মাঠে নাও নামতে পারেন অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেটের সদ্য সাবেক এই সহ-অধিনায়াক।

এক সংবাদ সম্মেলনে ওয়ার্নার জানান, ‘নিষেধাজ্ঞা কাটার পর তিনি অস্ট্রেলিয়ার হয়ে মাঠে নাও নামতে পারেন। তার বিরুদ্ধে সব অভিযোগ স্বীকার করে তিনি অস্ট্রেলিয় ক্রিকেটভক্তদের কাছে ক্ষমা চান।’

ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার নিষেধাজ্ঞার বিরুদ্ধে কোনো পদক্ষেপ নেবেন কি না, এমন কোনো প্রশ্নের সরাসরি কোন উত্তর না দিলেও তিনি জানান, ‘আপাতত পরিবারের সঙ্গে সময় কাটানোর জানান। এছাড়া আরও অনেক প্রশ্নেরই আবার কোনো উত্তর দেননি।’

এদিকে সংবাদ সম্মেলন শেষ হওয়ার পর এক টুইট বার্তায় ওয়ার্নার বলেন, ‘অনেক প্রশ্নেরই জবাব দিতে পারিনি। পরিস্থিতি বুঝতে পারছি। সময় মতো সব প্রশ্নের জবাব দিতে সর্বোচ্চ চেষ্টা করব। কিন্তু এসবের জন্য ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার কিছু আনুষ্ঠানিকতা রয়েছে।’

সদ্য সমাপ্ত কেপটাউন টেস্টের তৃতীয় দিনে দ্বিতীয় সেশনের সময় বিতর্কিত ঘটনাটি ঘটায় অস্ট্রেলিয়া। টিভিতে ধরা পড়ে, হলুদ কাপড়ের মত কিছু একটা পকেট থেকে বের করেছিলেন বেনক্রফট। পরে সেটি লুকানোর চেষ্টা করেন তার ট্রাউজারের ভেতরে। দিনের খেলা শেষে অধিনায়ক স্মিথ দোষ স্বীকার করে জানান বল টেম্পারিংয়ের চেষ্টা করার সিদ্ধান্তটি ছিল দলীয়।

এরপরই অধিনায়ক ও সহ-অধিনায়কের পদ থেকে স্মিথ ও ওয়ার্নারকে সরিয়ে দেয় ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া। তখনই গুঞ্জন ওঠে বড় শাস্তি হতে যাচ্ছে। অবশেষে বুধবার ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার সিইও জেমস সাদারল্যান্ড স্টিভেন স্মিথ ও ডেভিড ওয়ার্নাকে এক বছর আর বেনক্রফটকে নয় মাসের জন্য নিষিদ্ধের ঘোষণা দেয়।

আরো সংবাদ