, বৃহস্পতিবার, ২২ অক্টোবর ২০২০

বৃহস্পতিবার

বিষয় :

প্রকাশ :  ২০১৮-০৩-২০ ১৫:৩৭:৪৫

সাংবাদিকদের কারণে জাতি ভালো-মন্দ বোঝার সুযোগ পায় : অ্যাটর্নি জেনারেল

কাইছার ইকবাল চৌধুরী, বঙ্গনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম.

সাংবাদিকদের কারণেই জাতি ভালো-মন্দ বোঝার সুযোগ পায় বলে মন্তব্য করেছেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম।

তিনি বলেন, দেশের বেশির ভাগ গুণী লেখকরা এক সময় সাংবাদিকতায় জড়িত ছিলেন। সাংবাদিকরা আমার পছন্দের মানুষ। তবে যাদের আর্থিক অনিয়মসহ নানা দুর্বলতা থাকে তারাই সাংবাদিকদের ভয় পায়।

মঙ্গলবার সুপ্রিম কোর্টের নিজ কার্যালয়ে আইন, বিচার ও মানবাধিকারবিষয়ক সাংবাদিকদের সংগঠন ল’ রিপোর্টার্স ফোরামের (এলআরএফ) নব- নির্বাচিত কমিটির সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎকালে তিনি এসব কথা বলেন। এর আগে এলআরএফের ২০১৮-১৯ মেয়াদে নির্বাচিত কমিটির সঙ্গে ফটো সেশন করেন অ্যাটর্নি জেনারেল।

তিনি বলেন, সাংবাদিকরা সমাজের ভালো-মন্দসহ সব কিছু জাতির সামনে তুলে ধরেন। তাই রাজনীতিবিদ থেকে শুরু করে সব দায়িত্বশীলের উচিত সাংবাদিকদের পেশাগত বিষয়ে সহযোগিতা করা।

অ্যাটর্নি জেনারেল বলেন, সাংবাদিকতার মাধ্যমে বহুমাত্রিক অভিজ্ঞতা লাভ করা যায়। অতি সাধু, চোর-ডাকাত, ভূমি দস্যু কিংবা সমাজের ভালো মানুষের সঙ্গে মেলামেশার সুযোগ থাকায় সাংবাদিকদের অভিজ্ঞতার জায়গাটা বিস্তৃত।

তিনি বলেন, এডিটরিয়াল পলিসি কিংবা মালিকদের পলিসির কারণে অনেক সময় সাংবাদিকরা তাদের দৃষ্টিভঙ্গি গণমাধ্যমে ফুটিয়ে তুলতে পারেন না। কিন্তু এরপরেও সাংবাদিকরা ভালো কাজ করে যাচ্ছেন। আমি মনে করি মাথার ঘাম পায়ে ফেলে সাংবাদিকরা কাজ করে। তারাই সব চেয়ে হালাল উপায়ে জীবিকা নির্বাহ করে এবং তাদের মধ্যে কোনো দুই নম্বরি নেই। এ সময় তিনি সুপ্রিম কোর্টে কাজ করার ক্ষেত্রে সাংবাদিকদের সব ধরনের সহযোগিতার আশ্বাস দেন তিনি।

ল’ রিপোর্টার্স ফোরামের সাধারণ সম্পাদক হাসান জাবেদের সঞ্চালনায় সৌজন্য সাক্ষাৎকালে অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে কথা বলেন সংগঠনের সাবেক সভাপতি কাজী ফারুক, এম. বদিউজ-জামান, আশুতোষ সরকার এবং বর্তমান নির্বাচিত সভাপতি সাঈদ আহমেদ খান।

এ সময় সংগঠনের সহ-সভাপতি হিরা তালুকদার, যুগ্ম সম্পাদক হাবিবুর রহমান, কোষাধ্যক্ষ মুহাম্মদ ফজলুল হক মৃধা, সাংগঠনিক সম্পাদক আফজাল হোসেন, মনজুর হোসাইন, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক তানভীর আহমেদ এবং প্রশিক্ষণ ও কল্যাণ সম্পাদক মিজান আহমেদ, কার্যনির্বাহী সদস্য এনামুল হক, মালেক মল্লিক, এস এম নূর মোহাম্মদ এবং মোসাদ্দেক আহমদ বশিরসহ বিটে কর্মরত সিনিয়র ও জুনিয়র সাংবাদিকরা উপস্থিত ছিলেন।

আরো সংবাদ